সাকিব ভাইয়ের বিকল্প আমি নইঃ তাইজুল

শ্রীলঙ্কায় ওয়ানডে সিরিজের জন্য ডাক পেয়েছেন বাঁহাতি স্পিনার তাইজুল ইসলাম। সদ্য সমাপ্ত বিশ্বকাপে অসাধারণ পারফর্ম করা সাকিব আল হাসানের অনুপস্থিতিতে ভাগ্য খুলেছে তাঁর। যদিও সাকিবের বিকল্প হিসেবে নিজেকে ভাবছেন না তিনি।

ব্যাটে-বলে গত এক দশক ধরে বাংলাদেশকে তিন ফরম্যাটে জিতিয়ে চলেছেন সাকিব। কখনো ব্যাট হাতে আবার কখনো বল হাতে দলকে পথ দেখিয়েছেন তিনি। ব্যাটে-বলে একইসঙ্গে ব্যর্থ হয়েছেন সাকিব, এমন দিন খুবই কম এসেছে বাংলাদেশের ক্রিকেটে।

অপরদিকে তাইজুল বাংলাদেশ দলে খেলেন একজন বিশেষজ্ঞ স্পিনার হিসেবে। ব্যাটসম্যান তাইজুলের কাছ থেকে দলের তেমন কোনও চাওয়া নেই।

আবার টেস্ট একাদশের নিয়মিত সদস্য হলেও সীমিত ওভারের ক্রিকেটে বিবেচনার বাইরে থাকেন তাইজুল। ২৭ বছর বয়সী এই স্পিনার সর্বশেষ ওয়ানডে খেলেছেন ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে।

তাই তাইজুলকে অলরাউন্ডার সাকিবের বিকল্প হিসেবে কখনোই ভাবা হয় না। তাইজুলও এমনই মনে করেন। শ্রীলঙ্কায় গণমাধ্যমকে বাংলাদেশের এই স্পিনার বলেছেন, ‘আসলে সাকিব ভাইয়ের বদলি হিসেবে আমি আসি না। সে ব্যাটে-বলে সেরা, বিশ্বের এক নম্বর। চেষ্টা থাকবে উনার জায়গায় খেললে ভালো কিছু করার।’

গত কয়েক বছর জাতীয় দলের হয়ে টেস্ট খেলার পাশাপাশি ঘরোয়া ক্রিকেটে ধারাবাহিক পারফর্মেন্স করে আসছেন তাইজুল। বিসিবি একাদশের হয়ে ভারত গিয়েও স্পিন ভেল্কি দেখিয়েছেন তিনি। এ কারণেই সাকিবের অনুপস্থিতিতে দলে জায়গা পেয়েছেন বাঁহাতি স্পিনার।

তাঁর অন্তর্ভুক্তির ব্যাপারে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু বলেছেন, ‘ঘরোয়া ক্রিকেটে সে ধারাবাহিকভাবে ভালো খেলছে। লঙ্গার ভার্সন বলেন, ওডিআই বলেন সবই কিন্তু ভালো খেলছে।

সেই হিসেবে চিন্তা ভাবনা করেই ওকে নেয়া হয়েছে। যেহেতু আমাদের ‘এ’ দলের হয়েও খেলছে আর এইচপি থেকে ওর ব্যাপারে আমরা ইতিবাচক কিছু পেয়েছি।’

বাংলাদেশের হয়ে ২৪ টেস্ট খেলা তাইজুল ওয়ানডে খেলেছেন মাত্র চারটি। উইকেট পেয়েছেন পাঁচটি। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে অভিষেকেই হ্যাটট্রিকসহ চার উইকেট নিয়েছিলেন তিনি, যা তাঁর ওয়ানডে ক্যারিয়ার সেরা বোলিং।

Related posts

Leave a Comment